আজ ৩১শে আশ্বিন, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ১৬ই অক্টোবর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

দখলমুক্ত হলো নাগরপুরের জমিদারবাড়ি

নিজস্ব প্রতিনিধিঃ অনেক দিনের প্রতীক্ষার পর প্রত্নতত্ত্ব অধিদফতরের একটি বিশেষ টিমের নেতৃত্বে দখলমুক্ত করা হয়েছে টাঙ্গাইলের নাগরপুরের জমিদারবাড়ি। সোমবার দুপুরের পর থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত এ উদ্ধারকাজ পরিচালনা করা হয়।

টাঙ্গাইল জেলা প্রশাসন কার্যালয়ের সিনিয়র কমিশনার উপমা ফারিসা ও নাগরপুর উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) তারিন মসরুর নেতৃত্বে নাগরপুর মহিলা কলেজের ৮টি এবং নাগরপুর শহীদ শামসুল হক বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের দখলে থাকা একটি ভবন উদ্ধার করা হয়।

এসব ভবনে স্কুল-কলেজের শিক্ষকরা তাদের পরিবারসহ দীর্ঘদিন ধরে সেখানে বসবাস করে আসছিলেন।এর আগে প্রত্নতত্ত্ব অধিদফতরের পরিচালক ভবনগুলো পরিদর্শন করেন এবং জনজীবনের জন্য ঝুঁকিপূর্ণ হওয়ায় ৫ নভেম্বর জেলা প্রশাসনকে অবহিত করেন।

পরে জেলা প্রশাসনের নির্দেশে উপজেলা নির্বাহী অফিসার সিফাত-ই-জাহান নাগরপুর মহিলা কলেজের অধ্যক্ষ ও শহীদ শামসুল হক বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষককে ভবন খালি করে দেয়ার জন্য নোটিশ প্রদান করেন।

নাগরপুর মহিলা কলেজের অধ্যক্ষ ও শহীদ শামসুল হক বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক জেলা প্রশাসকের কাছে সময় চান। পরে উপজেলা নির্বাহী অফিসার ১৬ নভেম্বর পুনরায় নোটিশ প্রদান করেন।

সোমবার বিকালে টাঙ্গাইল জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের সিনিয়র কমিশনার ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট উপমা ফারিসা, নাগরপুর উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) তারিন মসরুর ও থানার ওসি মো. আনিসুর রহমান আনিস ফোর্সসহ ঘটনাস্থলে যান।

এ সময় দখলে থাকা ভবনগুলো দখলমুক্ত করে সিলগালা করা হয়। এদিকে জানমালের নিরাপত্তার স্বার্থে সিলগালাকৃত জরাজীর্ণ ভবনগুলোতে জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে জনসাধারণকে অনুপ্রবেশ না করার জন্য সতর্ক নোটিশ সাঁটানো হয়।

এ প্রসঙ্গে জানতে চাইলে উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) তারিন মসরুর জানান, রাতে জনস্বার্থে জরাজীর্ণ ও ঝুঁকিপূর্ণ ভবনে থাকা লোকদের ভবন ছেড়ে দেয়ার একাধিক তাগিত দেয়া হয়। অবশেষে ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের নির্দেশে সোমবার উচ্ছেদ অভিযান পরিচালনা করা হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     এ বিভাগের আরো সংবাদ