আজ ২৫শে বৈশাখ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ৮ই মে, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

ঘাটাইলে সাবেক ও বর্তমান সাংসদের নেতৃত্বে বিজয় ‌র‌্যালিতে লাখো জনতার ঢল

নিজস্ব প্রতিবেদক ঘাটাইল থেকেঃ সারাদেশের ন্যায় টাঙ্গাইলের ঘাটাইল উপজেলায় নানা আয়োজনে বিজয় দিবস পালিত হয়েছে।সাবেক এমপি আমানুর রহমান খান রানার নেতৃত্বে ৪৯তম বিজয় দিবসের নানা আয়োজনের মধ্যে ছিলো,বিজয় দিবসের প্রথম প্রহরে শহীদদের সৃতি স্তম্ভে পুষ্পস্তবক অর্পণ।পরে সাবেক সাংসদ রানার নেতৃত্বে বেলা এগারোটায় এক বিশাল বিজয় র্যালি বের হয়।র্যালিতে উপজেলার ১৪টি ইউনিয়ন থেকে আগত হাজার হাজার আওয়ামী লীগ নেতাকর্মীরা অংশগ্রহণ করে।এর ফলে পৌর এলাকায় তিল ধারনের ঠাই ছিলো না।এসময় জয়বাংলা ধ্বনিতে মুখরিত হয় ঘাটাইলের রাজপথ। পরে র্যালিটি পুরাতন বাসষ্ট্যান্ড চত্বর থেকে পৌর সহরের বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ শেষে আলোচনা সভা স্হলে এসে উপস্হিত হয়। উপজেলা আওয়ামী লীগ ছাত্রলীগ, যুবলীগ আয়োজিত উক্ত আলোচনা সভায় সভাপতিত্ব করেন, পৌর আওয়ামী লীগের আহবায়ক খলিলুর রহমান তালুকদার। সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন টাঙ্গাইল-৩ ঘাটাইল আসনের সংসদ সদস্য আতাউর রহমান খান।

এসময় বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, সাবেক এমপি আমানুর রহমান খান, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান কাজী আরজু, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান শাহিনা সুলতানা শিল্পি, উপজেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক বিদ্যুৎ সরকার, রসুলপুর ইউপি চেয়ারম্যান এমদাদ সরকার, দিগর ইউপি চেয়ারম্যান আবুল কালাম আজাদ মামুন, আনেহলা ইউপি চেয়ারম্যান তালুকদার শাজাহান,২নং ঘাটাইল ইউপি চেয়ারম্যান মোঃ হায়দার আলী প্রমুখ। আলোচনা সভার প্রধান অতিথির বক্তব্যে সাংসদ আতাউর রহমান খান এমপি বলেন,বাংলাদেশের স্বাধীনতা এতো সহজে অর্জিত হয়নি।কারণ দেশের ভিতরে তখনো একটি স্বাধীনতা বিরোধী চক্র সক্রিয় ছিলো। জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নেতৃত্বে ত্রিশ লক্ষ শহীদের রক্ত ও দুই লক্ষ মা-বোনদের ইজ্জতের বিনিময়ে অনেক ত্যাগের বিনিময়ে অর্জিত এই স্বাধীনতা।শহীদদের রক্তে রঞ্জিত এই স্বাধীনতার মান কিছুতেই ক্ষুন্ন হতে দেবোনা। সাবেক সাংসদ রানা তার বক্তব্যে উল্লেখ করেন,আফসোস লাগে যখন দেখি স্বাধীনতা ৪৯বছর পরে এসে স্বাধীনতার স্থপতির অবমাননা করা হচ্ছে,স্বাধীনতার এতোদিন পরেও স্বাধীনতা বিরোধী শক্তি আবারো মাথা চাড়া দেয় স্বাধীনতাকে কলঙ্কিত করতে।তাদের হুশিয়ার করে দিচ্ছি,সাবধান হয়ে যাও।জাতির পিতার সম্মান এবং তার দান এই বাংলার স্বাধীনতার মান রক্ষার জন্য প্রয়োজনে আবারো রক্ত দেবো।টাঙ্গাইলের মাটিতে কোন ষড়যন্ত্রকারীর স্হান হবেনা।জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দেশ এগিয়ে যাচ্ছে।এই অগ্রযাত্রায় বাধা সৃষ্টিকারী সকল ষড়যন্ত্র কঠোর হাতে দমন করা হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     এ বিভাগের আরো সংবাদ