আজ ৪ঠা জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ১৮ই মে, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

মির্জাপুরে ভাইয়ের হাতে বোন খুন! ভাই আটক

মির্জাপুর প্রতিনিধিঃ টাঙ্গাইলের মির্জাপুরে ছোট ভাইয়ের হাতে আপন বড় বোন খুন হয়েছে। ঘটনাটি ঘটেছে বুধবার বিকেলে উপজেলার বাঁশতৈল ইউনিয়নের উত্তর পেকুয়া গ্রামের ঘাতকের নিজ বাড়িতে। বুধবার ছোট ভাই শহিদুল ইসলাম (২৮) উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয়ে কলেজ পড়ুয়া ছাত্রী বড় বোন সুলতানা আক্তার (৩০) কে গলা টিপে খুন করে। ঘাতক এর বাবার নাম মৃত মো.শাজাহান আলী।
জানাগেছে, কয়েক দিন ধরে শহিদুল তার বড় বোনের কাছে টাকা চেয়ে আসছিল। তার জের ধরেই বোনের সাথে জমি সংক্রান্ত বিষয় নিয়ে কথা-কাটাকাটি হয় এবং এক পর্যায়ে ঘরের গেটে তালা লাগিয়ে কিল,ঘুষি মারে। শেষে গলা টিপে ভাই তার বড় বোনকে হত্যা করে। আত্মচিৎকারে বাড়ির লোক জন সহ আশে পাশের লোক জন দেখলেও কিছুই করার ছিল না বলে উপস্থিতিরা জানান। তারা আরো বলেন, গেটের মধ্যে তালা লাগিয়ে এ হত্যা কান্ড করা হয়। যার বলে ফলে আমরা কেউ ভিতরে প্রবেশ করতে পারে নাই। পরে ঘাতককে আটকিয়ে রেখে বাঁশতৈল পুলিশ ফাড়িতে খবর দিলে ঘটনাস্থল থেকে পুলিশ ঘাতক শহিদুল ইসলামকে গ্রেফতার করে।
বাঁশতৈল ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান ও ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারন সম্পাদক মো.শামসুল আলম শামছু বলেন,খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে এসে দেখি ছোট ভাই শহিদুল ইসলামের হাতে খুন হয়েছে তার আপন বড় বোন সুলতানা আক্তার। সুলতানা আক্তার উন্মক্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের কলেজ শাখার ছাত্রী ছিলেন। ৫ বোনের মধ্যে এক ভাই শহিদুল ছিল সবার চাইতে ছোট। নিহত সুলতানার পরিবার ও এলাকাবাসি ঘাতক শহিদুলের দৃষ্টান্ত মুলক শাস্তির দাবী জানিয়েছেন।
এ ব্যাপারে বাঁশতৈল পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ মো. সাইফুল ইসলাম সাংবাদিকদের জানান,জমি সংক্রান্ত ও পারিবারিক বিরোধ এবং টাকা পয়সা নিয়ে ভাই শহিদুল ইসলামের হাতে বড়  বোন সুলতানা খুন হয়েছে। ঘাতক শহিদুলকে গ্রেফতার করা রয়েছে। লাশ ময়না তদন্তের জন্য টাঙ্গাইল জেনারেল হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে। নিহত সুলতানার চাচা সোহরাব হোসেন বাদী হয়ে বিকালে থানায় মামলা দায়ের করেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     এ বিভাগের আরো সংবাদ