আজ ৩১শে আশ্বিন, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ১৬ই অক্টোবর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

ভূঞাপুরে নির্বাচনে সংঘর্ষের কারণে ভোট গ্রহণ সাময়িক বন্ধ

নিজস্ব প্রতিনিধিঃ টাঙ্গাইলের ভূঞাপুর পৌর নির্বাচনে দুই কাউন্সিলর প্রার্থীর সমর্থকের মধ্যে সংঘর্ষে আধা ঘন্টা ভোট গ্রহণ বন্ধ রাখে কর্তৃপক্ষ।

শনিবার দুপুরের দিকে পৌরসভার কুতুবপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে এ হামলায় নারীসহ অন্তত ছয়জন আহত হয়েছে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

ভূঞাপুর থানার ওসি রাশেদুল ইসলাম বলেন, এ সংঘর্ষে অন্তত ছয় আহত হয়েছেন। তার মধ্যে তিনজনকে টাঙ্গাইল সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়ে।

অন্যদিকে, ব্যালটে সিল মারার অভিযোগে এনে কেন্দ্রটি বাতিলে কর্তৃপক্ষের কাছে লিখিত আবেদন করেছেন স্বতন্ত্র প্রার্থী আব্দুর সাত্তার।

এক নম্বর ওয়ার্ডের প্রিজাইডিং অফিসার শাহীনুল ইসলাম সাংবাদিকদের বলেন, দুই কাউন্সিলর প্রার্থীর সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষ হয়েছে। পরে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনেন।

“এ ঘটনায় ৩০-৩৫ মিনিট ভোটগ্রহণ বন্ধ রাখা হয়। এখন ভোটগ্রহণ চলছে।”

মেয়র প্রার্থী আব্দুস সাত্তার আওয়ামী লীগের মেয়র প্রার্থীর বিরুদ্ধে অভিযোগ তুলে বলেন, “এই কেন্দ্রের সংঘর্ষকে কেন্দ্র করে ব্যালটে প্রভাব খাটিয়ে নৌকায় সিল দেওয়া হয়।”

তাই নির্বাচন কর্তৃপক্ষের কাছে এ কেন্দ্রটি বাতিলের জন্য লিখিত অভিযোগ করেছেন বলে জানিয়েছেন তিনি।

ঘটনার বিবরণ দিতে গিয়ে স্থানীয় আতিক নামের এক ব্যক্তি জানান, ভূঞাপুর পৌরসভার এক নম্বর ওয়ার্ডে কাউন্সিলর প্রার্থী পানির বোতল প্রতীকের আনোয়ার হোসেনের সমর্থকরা ‘জাল ভোট দেওয়া শুরু করে।’

পরে বিষয়টি নিয়ে উটপাখি প্রতীকের কাউন্সিলর প্রার্থী জাহিদুল ইসলামের সমর্থকরা প্রতিবাদ করে। এক পর্যায়ে জাহিদুলের এজেন্টসহ সমর্থকদের কেন্দ্র থেকে বের করে দেয়। এ সময় আনোয়ারের লোকজন জাহিদুলের সমর্থকদের ওপর হামলা চালায়।

তবে ‘ব্যালটে সিল মারার’ স্বতন্ত্র প্রার্থী আব্দুর সাত্তারের অভিযোগের বিষয়ে আওয়ামী লীগের মেয়র প্রার্থী মাসুদুর হক মাসুদের বক্তব্য নেওয়া সম্ভব হয়নি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     এ বিভাগের আরো সংবাদ