আজ ২রা আষাঢ়, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ১৬ই জুন, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

মির্জাপুরে দুই পক্ষের ঝগড়ায় গরম পানিতে শরীর ঝলসে গেছে চা দোকানির

নিজস্ব প্রতিনিধিঃ টাঙ্গাইলের মির্জাপুরে কেটলির গরম পানিতে আবদুস সামাদ নামের এক চা-দোকানির শরীর ঝলসে গেছে। এলাকাবাসীর অভিযোগ, ওই দোকানে দুই ব্যক্তির মধ্যে ঝগড়া বাধে। তাঁদের মাধ্যমে গরম পানি পড়ে আবদুস সামাদের গায়ে।

আবদুস সামাদের বাড়ি উপজেলার বাঁশতৈল ইউনিয়নের নয়াপাড়া গ্রামে। ঘটনাটি ঘটেছে একই ইউনিয়নের বাঁশতৈল বাজারে সোমবার (৩১ মে) সন্ধ্যায়। তাঁকে গুরুতর আহত অবস্থায় মির্জাপুরের কুমুদিনী হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

এলাকাবাসী সূত্রে জানা গেছে, বাঁশতৈল ইউনিয়নটির পাঁচগাঁও গ্রামের নাদিম হোসেনের সঙ্গে পাশের তেলিপাড়া এলাকার জাহাঙ্গীর সিকদারের দীর্ঘদিন ধরে জমি নিয়ে বিরোধ চলছে। সোমবার সন্ধ্যায় দুজনই আবদুস সামাদের চায়ের দোকানে আসেন। সেখানে কথা–কাটাকাটির একপর্যায়ে তাঁদের মধ্যে ধস্তাধস্তি হয়।

এ সময় নাদিম পাশে থাকা চায়ের কেটলি জাহাঙ্গীরের দিকে ছুড়ে মারতে উদ্যত হন। তখন নাদিমের হাতে লাথি মারেন জাহাঙ্গীর। এতে কেটলিতে থাকা গরম পানি গিয়ে পড়ে আবদুস সামাদের শরীরে। ফুটন্ত পানিতে তাঁর কোমরের নিচে দুই পায়ের শুরু থেকে নিচের অংশ ঝলসে যায়।

গুরুতর অবস্থায় স্থানীয় লোকজন আবদুস সামাদকে কুমুদিনী হাসপাতালে ভর্তি করেন। হাসপাতালের সার্জারি বিভাগের চিকিৎসক কামাল হোসেন বলেন, সামাদের অবস্থা সংকটাপন্ন। তাঁকে প্রয়োজনীয় চিকিৎসাসেবা দেওয়া হচ্ছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     এ বিভাগের আরো সংবাদ