আজ ৮ই আষাঢ়, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ২২শে জুন, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

দেলদুয়ারে ভাড়াটে খুনি দিয়ে স্বামীকে খুন করান স্ত্রী

নিজস্ব প্রতিনিধিঃ দেলদুয়ার উপজেলায় ক্লিনিক ব্যবসায়ী আনিসুর রহমানকে ভাড়াটে খুনি দিয়ে হত্যা করান তাঁর স্ত্রী। হত্যায় অংশ নেওয়া দুই ব্যক্তি গ্রেপ্তার হওয়ার পর আদালতে দেওয়া জবানবন্দিতে এ কথা জানিয়েছেন। পরে সিআইডি আনিসুরের স্ত্রী মুরছেনা বেগমকে গ্রেপ্তার করে।

মুরছেনাকে রোববার টাঙ্গাইল চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে হাজির করে সাত দিনের রিমান্ড চেয়েছে সিআইডি। শনিবার রাতে তাঁকে তাঁর বাড়ি থেকে গ্রেপ্তার করা হয়।

গত বছর ১৭ নভেম্বর উপজেলার লাউহাটি ইউনিয়নের হেরেম্বপাড়ার আনিসুর রহমানের (৫০) বস্তাবন্দি লাশ তাঁর গ্রামের খাল থেকে উদ্ধার করা হয়। তিনি লাউহাটি বাজারের জনসেবা ক্লিনিকের মালিক ছিলেন। ঘটনার পরদিন তাঁর মেয়ে মারুফা আক্তার বাদী হয়ে দেলদুয়ার থানায় হত্যা মামলা করেন। মামলায় অজ্ঞাতপরিচয় ব্যক্তিদের আসামি করা হয়। প্রথমে দেলদুয়ার থানা–পুলিশ মামলাটি তদন্ত করেন। পরে পুলিশ সদর দপ্তরের নির্দেশে এ বছর ২৮ ফেব্রুয়ারি মামলার তদন্তের দায়িত্ব দেওয়া হয় সিআইডিকে।

টাঙ্গাইল সিআইডির বিশেষ পুলিশ সুপার মো. কুতুব উদ্দিন জানান, মামলাটি পাওয়ার পর তদন্তের মাধ্যমে হত্যায় অংশ নেওয়া ব্যক্তিদের শনাক্ত করা হয়। পরে তথ্যপ্রযুক্তির মাধ্যমে তাঁদের অবস্থান জানা যায়। গত বুধবার বিকেলে গাজীপুরের টুঙ্গি বাজার এলাকা থেকে রিপন খানকে (২৩) গ্রেপ্তার করা হয়। তিনি লাউহাটি গ্রামের হেলাল খানের ছেলে। পরে তাঁর স্বীকারোক্তি অনুযায়ী ওই রাতেই ময়মনসিংহের মুক্তগাছা উপজেলার পোড়াবাড়ী গ্রাম থেকে আবদুস সেলিম খান (৬০) নামের অপর এক ব্যক্তিকে গ্রেপ্তার করা হয়। তিনি ওই গ্রামের মৃত হাকিম খানের ছেলে।

মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা পুলিশ পরিদর্শক মো. সুজন মিয়া জানান, জিজ্ঞাসাবাদে তাঁরা দুজনই হত্যাকাণ্ডের সঙ্গে জড়িত থাকার কথা স্বীকার করেন। আনিসুরকে হত্যা করার জন্য তাঁর স্ত্রী মুরছেনা তাঁদের ভাড়া করেছিলেন বলে সিআইডিকে জানান তাঁরা। তাঁরা আদালতে স্বীকারোক্তি দিতেও রাজি হন। পরে গত বৃহস্পতিবার দুজনকে টাঙ্গাইল চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে হাজির করা হয়। সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মো. মাহবুবুর রহমান সেলিম খানের ও অপর সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট ফারজানা হাসানাত রিপন খানের জবানবন্দি লিপিবদ্ধ করেন। পরে তাঁদের কারাগারে পাঠিয়ে দেওয়া হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     এ বিভাগের আরো সংবাদ