আজ ১০ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ২৫শে নভেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ

ধর্ষণ মামলার বিচার কাজ ১৮০ দিনের মধ্যে শেষ করতে হবে

নিজস্ব প্রতিনিধিঃ নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনের অধীনে ধর্ষণসহ যেকেনো মামলার বিচার কাজ ১৮০ দিনের মধ্যে শেষ করতে হবে। একইসঙ্গে ধর্ষণের ঘটনায় সর্বোচ্চ শাস্তি মৃত্যুদণ্ডের বিধান রেখে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইন (সংশোধন) অধ্যাদেশ ২০২০ খসড়ার চূড়ান্ত অনুমোদন দেওয়া হয়েছে।

সোমবার (১২ অক্টোবর) প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত মন্ত্রিসভার বৈঠকে এর চূড়ান্ত অনুমোদন দেওয়া হয়। বৈঠক শেষে দুপুরে সচিবালয়ে মন্ত্রিপরিষদ সচিব খন্দকার আনোয়ারুল ইসলাম সাংবাদিকদের এ তথ্য জানান।

তিনি বলেন, আন্দোলনের কারণে নয়, পরিস্থিতি বিবেচনায় আইন সংশোধন করা হয়েছে। মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয় ধর্ষণের সর্বোচ্চ শাস্তি যাবজ্জীবনের পাশাপাশি মৃত্যুদণ্ডের বিধানযুক্ত করতে আইনের সংশোধনী নিয়ে আসে। কেবিনেট আলোচনা হয়েছে। প্রধানমন্ত্রীসহ মন্ত্রিসভার সদস্যরা এ বিষয়ে একমত হয়েছেন। ধর্ষণের সর্বোচ্চ শাস্তি মৃত্যুদণ্ডে বিধান রেখে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইন (সংশোধন) অধ্যাদেশ ২০২০ খসড়ার চূড়ান্ত অনুমোদনের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। আইে  ধর্ষণের শাস্তি মৃত্যুদণ্ড কিংবা যাবজ্জীবনসহ সশ্রম কারাদণ্ডের বিধান রাখা হয়েছে বলেও জানান তিনি।

সচিব বলেন, সংসদ অধিবেশন না থাকায় রাষ্ট্রপতি অধ্যাদেশ জারি করবেন। ফলে সেটি আইনে পরিণত হবে। পরে সেটি পাস করা হবে।

আইনে এর বিচারের সময়সীমা সম্পর্কে  সুনির্দিষ্টভাবে বলা হয়েছে জানিয়ে খন্দকার আনোয়ারুল ইসলাম বলেন, নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনের অধীনে ধর্ষণসহ যেকেনো মামলার বিচার কাজ ১৮০ দিনের মধ্যে শেষ করতে হবে।

প্রধানমন্ত্রী গণভবন থেকে আর সচিবালয় থেকে মন্ত্রিসভার সদস্যরা মন্ত্রিসভার বৈঠকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে যুক্ত হন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     এ বিভাগের আরো সংবাদ
Share via
Copy link
Powered by Social Snap